13

0

SHARE

স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ১০০ কোটি টাকার বিশেষ সম্মানি, মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের জন্য বিশেষ বীমা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

Fri Apr 17 2020, by Kamalendu Das

বাংলাদেশের করোনাভাইরাস মোকাবেলায় যারা মাঠ পর্যায়ে কাজ করছেন, তাদের জন্য বেশ কয়েকটি সুবিধার ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় প্রত্যক্ষভাবে যে সরকারি স্বাস্থ্যকর্মীরা কাজ করছেন, তাদের জন্য বিশেষ সম্মানির জন্য ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হচ্ছে।

এছাড়া করোনাভাইরাস মোকাবেলায় মাঠ পর্যায়ে যারা প্রত্যক্ষভাবে কাজ করছেন, তাদের জন্য বিশেষ বীমার ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দায়িত্ব পালনকালে যদি কেউ আক্রান্ত হন, তাহলে পদমর্যাদা অনুযায়ী প্রত্যেকের জন্য থাকছে ৫ থেকে ১০ লাখ টাকার স্বাস্থ্য বীমা। মৃত্যুর ক্ষেত্রে এটি পাঁচগুণ হবে।

স্বাস্থ্যবীমা ও জীবনবীমা বাবদ বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৭৫০ কোটি টাকা।

চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, সশস্ত্র বাহিনী ও বিজিবির সদস্য বা অন্য যারা মাঠ পর্যায়ে কাজ করছেন তারা এই বীমার আওতায় থাকবে।

[News Source: BBC Bangla]

News & Updates

Image

New Blog Post
যেভাবে বাড়ছে মৃত্যু

Image

New Appeal
[Sample Appeal-1] ক্যন্সার আক্রান্ত নাবিলার জীবন বাচাতে এগিয়ে আসুন

Image

New Appeal
[Test Appeal-3] Support corona hit people poor families who do not have any work right in this moment.

Image

New Blog Post
'The Bill & Melinda Gates Foundation will commit an additional $150 million to the COVID-19 response' - Melinda Gates

Image

New Blog Post
স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ১০০ কোটি টাকার বিশেষ সম্মানি, মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের জন্য বিশেষ বীমা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

Image

New Recommendation
tangila islam recommended "[This is appeal is created for website test only "

Image

New Recommendation
Kamalendu Das recommended "[This is appeal is created for website test only "

Image

New Blog Post
Cryptocurrency Winners Are Starting to Emerge

Image

New Appeal
[This is appeal is created for website test only

Image

New Appeal
Test Appeal for COVID-19